সিলেটে রাত্রির যাত্রী সিনেমার শুভমুক্তি উপলক্ষে আনন্দ উৎসব

আগামী ১৪ ডিসেম্বর বাংলা চলচিত্রের সব চাইতে আলোচিত নাম রাত্রি যাত্রীর সিনেমার শুভমুক্তি উপলক্ষে সিলেটে সিনেমার সহযাত্রীদের আনন্দ রেলী বের করা হয়।রেলিটি নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে সাকির্ট হাউজে গিয়ে শেষ হয়। রেলিতে অংশ নেন সিলেটের বিশিষ্টজনসহ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণরা। রেলিশেষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
রাত্রিযাত্রী সহযাত্রীর সিলেটের সমন্বয়ক সংবাদকর্মী মবরুর আহমদ সাজু’র সভাপতিত্বে ও  সিনেমার তরুণ অভিনেতা ও সহকারী পরিচালক মাইম সৈকতের পরিচালনায় উক্ত আলোচসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি কলেজের অধ্যক্ষ বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ম.রহমান বুলবুল বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলা টিভির সিলেট ব্যুরো চীফ আবু তালেব মুরাদ,লল্ডন চ্যানেল আইর প্রোগ্রাম প্রধান বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মিসবাহ জামান, কবিও সাংবাদিক দেবব্রত রায় দিপন  সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সহসাধারণ সম্পাদক এম,সাইফুর তালুকদার, বক্তারা বলেন জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িকতা নির্মূলে সুস্থধারার চলচ্চিত্র নির্মাণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মন্তব্য করেন।
বক্তারা বলেন আধুনিক জ্ঞানবিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তির বিস্ময়কর অবদান চলচ্চিত্র চিত্তবিনোদনের একটি জনপ্রিয় মাধ্যম। চিত্তবিনোদন ছাড়াও চলচ্চিত্র সমাজ গঠনে, শিক্ষা বিস্তারে ও গণসচেতনতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বলা হয়ে থাকে, অসংখ্য গ্রন্থ যে শিক্ষা সম্পূর্ণ করতে পারে না একটি চলচ্চিত্র তা সহজে পারে, যদি তার বিষয়বস্তু ও নির্মাণশৈলী উঁচু মাপের হয়। চলচ্চিত্র শুধু বিনোদন মাধ্যম নয়, এর মাধ্যমে মানুষকে সৃজনশীল ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে আগ্রহী করে তোলাও সম্ভব।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যর মাঝে বক্তব্য রাখেন এডভোকেট কামাল আহমদ,সাংবাদিক এম,এ,ওয়াহিদ, এমরান ফয়সল, তরুণ সংগঠক, কামরান তালুকদার নাজমুল আলম, রুবেল,কংকন,তারিফ,প্রমুখ
উল্লেখ্য বাংলা সিনেমার অন্যতম পরিচালক হাবিবুল ইসলাম হাবিবের নতুন ভাবনার  চলচিত্র  রাত্রিযাত্রী  সিলেটে শুভমহরত দিয়ে কার্যক্রম শুরু হয়

Facebook Comments

You may also like

১০৪ সদস্য বিশিষ্ট দিনাজপুর জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতির নতুন কমিটির যাত্রা শুরু

লোক প্রশাসন বিভাগের ৪৪তম আবর্তনের শিক্ষার্থী এ.এস.এম সায়েমকে